স্বাস্থ্য

কাঁঠালে আছে যেসব পুষ্টি গুণাগুণ

মানুষের দেহে যেসব পুষ্টির প্রয়োজন প্রায় সবই আছে কাঁঠালের মধ্যে। কাঁঠালের বিচিরও রয়েছে নানা গুণ যা মানব দেহের জন্য উপকারী। বিশেষ করে এই করোনাকালে যত পারেন কাঁঠাল খেয়ে নিতে পারেন। তাতে আপনারই উপকার।

পুষ্টিবিদরা বলছেন, কাঁঠাল পুষ্টিগুণে ভরপুর। কাঁঠালে বিটা ক্যারোটিন, ভিটামিন এ, সি, বি-১, বি-২, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়ামসহ নানা রকমের পুষ্টি ও খনিজ উপাদান পাওয়া যায়। এই সকল উপাদান আমাদের শরীরকে সুস্থ ও সবল রাখতে সাহায্য করে। এর পাশাপাশি ভিটামিনের চাহিদাও পূরণ করে কাঁঠাল। এবার জেনে নিন, কাঁঠালের উপকারিতা সম্পর্কে-

ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট সমৃদ্ধ কাঁঠাল রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। সংক্রমণকে প্রতিহত করার শক্তি বৃদ্ধি পায়।

শর্করায় পরিপূর্ণ এই ফলের ১০০ গ্রাম পরিমাণে থাকে প্রায় ৯৪ ক্যালরি। তার ফলে কাঁঠাল খাওয়ার পর দুর্বলতা কেটে যায়। তবে ডায়াবেটিস রোগীদের এই ফল থেকে দূরে থাকাই শ্রেয় ৷

কাঁঠালে পটাসিয়ামের পরিমাণ প্রচুর। ফলে এই মৌসুমি ফলে হৃদযন্ত্র ভাল থাকে ৷ বিঘ্নিত হয় না রক্ত সংবহন পদ্ধতিও।

পরিমিত পরিমাণে খেলে কাঁঠাল পরিপাক ক্রিয়ায় সাহায্য করে। কারণ অন্যান্য ফলের মতো কাঁঠালও ফাইবারসমৃদ্ধ।

কাঁঠালের অ্যান্টি অক্সিড্যান্ট শরীরকে টক্সিনমুক্ত রাখতে সাহায্য করে। ফলে ক্যান্সারের আশঙ্কা কম হয়।

ভিটামিন এ সমৃদ্ধ কাঁঠাল চোখ ভাল রাখে, দৃষ্টিশক্তি উন্নত হয়। ছানি এবং রেটিনার অন্যান্য অসুখকে প্রতিহত করে এই ফল।

শরীরে অকালবার্ধক্য বা জরার ছাপকেও ঠেকিয়ে রাখে কাঁঠাল।

কাঁঠাল ক্যালসিয়ামসমৃদ্ধ ৷ এই ফলে হাড় মজবুত হয়। দূরে থাকে হাড়ের জটিল রোগের আশঙ্কা।

থাইরয়েড এবং দূষণ থেকে হওয়া হাঁপানি রোধ করতেও কাঁঠাল কার্যকরী।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button